First page 3 months ago (7)

court ordered the custody of Parth and Arpita till July 31 : ৩১ জুলাই পর্যন্ত পার্থ ও অর্পিতাকে জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত

court ordered the custody of Parth and Arpita till July 31

 

কলকাতা, ১৮ আগস্ট  : শেষ পর্যন্ত পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দিল আদালত।

স্কুলে শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন পার্থ। তাঁর ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে কোটি কোটি টাকা, গহনা এবং বিদেশি মুদ্রা। দু’জনের যৌথ সম্পত্তির হদিশও মিলেছে। সেই নিয়ে কাটাছেঁড়ার মধ্যেই এ দিন নগর দায়রা আদালতে পেশ করা হয় পার্থকে। সেখানে তাঁর আইনজীবীরা জামিনের আবেদন জানান। ইডি-র তরফে যদিও তার তীব্র বিরোধিতা করা হয়।

আদালতে জামিনের আবেদন করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের আইনজীবী। বলেন, তৃণমূলের প্রাক্তন মহাসচিবের হিমোগ্লোবিন কম, তাঁর শরীরে ক্রিয়েটিনিনের পরিমাণও বেড়েছে। একা চলাফেলার ক্ষেত্রেও তাঁর অসুবিধা রয়েছে। প্রাক্তন মন্ত্রীর চিকিৎসার প্রয়োজন। দ্রুত চিকিৎসা না হলে তাঁর ‘বিপদ’ হতে পারে।

মামলার শুনানিতে পাল্টা ইডি-র আইনজীবী সওয়াল করেন, গ্রেফতার হওয়ার আগে সুস্থ ছিলেন পার্থ। এদিক-ওদিক যেতেও পারছিলেন। অসুস্থ হলে জেল সুপারকে জানান তিনি ওষুধের ব্যবস্থা করবেন। ভুবনেশ্বর এইমসে আগেই জানিয়েছিল এই বয়সে এমন সমস্যা অস্বাভাবিক নয়। জেল হেফাজতে মন্ত্রীর স্বাস্থ্য ভেঙে পড়ার যুক্তি মানতে চাননি ইডি-র আইনজীবী। তিনি আদালতে জানান, দু’দিন অন্তর জোকা ইএসআই-তে তাঁর স্বাস্থ্যপরীক্ষা হয়েছে জানিয়ে পার্থর জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করেন ইডির আইনজীবী। এদিন পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামিনের আবেদন জানানো হলেও, অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের আইনজীবী জামিনের আবেদন করেননি। এদিন অর্পিতাও ছিলেন আদালতে। তিনি চলে যাওয়ার পর নিয়ে আসা হয় পার্থকে।

You might also like!